ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কি কারণে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হচ্ছে এবং অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় যে ভুল কাজ গুলো আমরা করে থাকি দেখুন বিস্তারিত ২০২২

আসসালামুআলাইকুম কেমন আছেন সবাই আশা করি সকলেই ভালো রয়েছেন ইনশাআল্লাহ আমিও খুব ভালো রয়েছি তাই অনেকদিন পর আজকের নতুন একটি পোষ্ট নিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটে হাজির হলাম আশাকরি এই পোস্ট থেকে অনেকেই উপকৃত হবেন কেননা আমাদের আজকের টপিক হচ্ছে ভিন্ন একটি টপিক যেটি আমাদের সকলের জানা প্রয়োজন৷

কারণ আমরা সকলেই ফেসবুক নামের একটি সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে থাকি এবং এখানে আমাদের বেশিরভাগ মানুষের কিন্তু অ্যাকাউন্ট রয়েছে একাউন্টগুলো কিভাবে সিকিউরিটি সম্পন্ন করব এবং আরো বিস্তারিত ভাবে জানতে পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

আমরা আজকে আলোচনা করবো ফেসবুক নিয়ে অর্থাৎ বর্তমান সময়ে আমরা সকলে জানি ফেসবুক হচ্ছে বিশ্বের অন্যতম সেরা একটি সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্ক যেটি আমরা কমবেশি সকলেই ব্যবহার করে থাকি ছোট বাচ্চা থেকে বৃদ্ধ মানুষ পর্যন্ত এই ফেসবুক বর্তমান সময়ে ব্যবহার করতেছে আশা করি আপনিও এই ফেসবুক ব্যবহার করতেছেন বর্তমান সময় কিন্তু আমাদের বর্তমান সময়ে ফেসবুক ব্যবহার করতে কিছু সমস্যা দেখা যাচ্ছে এবং আমরা বেশ কিছু সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি।

কি কি কারণে আমাদের এই সমস্যা গুলো দেখা যাচ্ছে যা আগে কখনও আমরা দেখিনি ? এবং অনেকের অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর অর্থাৎ ফেসবুকে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পর কিছুক্ষনের ভিতর সেটি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে কিভাবে এটি থেকে আমরা বাঁচতে পারি এবং আমাদের অ্যাকাউন্টগুলো খুব দ্রুত সম্পন্ন সিকিউরিটি করতে পারি যেন আমাদের অ্যাকাউন্টটিতে কোন প্রকার সমস্যা না হয় এবং আপনি খুব সহজভাবে যেন ফেসবুক ব্যবহার করতে পারেন সব সময়।

আমরা সকলেই জানি ফেসবুক আগের থেকে বর্তমান সময়ে অনেকটা আপডেট এনেছে কেননা বর্তমান সময়ে যে কোন জিনিসের কিছুদিন পরপর আপডেট আমরা দেখতে পারতেছি তাই আগের থেকে অনেকটাই কিন্তু বর্তমান সময়ে ফেসবুক মজবুত এবং সিকিউরিটি সম্পন্ন হয়েছে এবং যারা আগে সিস্টেমে অ্যাকাউন্ট তৈরি করতো বা বিভিন্ন ধরনের অবৈধ কাজ করতো এইগুলো বর্তমান সময়ে করা যায়নি এবং কেউ যদি এ কাজগুলো করার চেষ্টা করে তাহলে তার একাউন্টের সাথে সাথে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এবং এটি কিন্তু ফেসবুক কৃর্তপক্ষ করে দিচ্ছে।

যদি আপনার এখন পর্যন্ত কোন প্রকার সমস্যা দেখা দেয়নি তাহলে আপনি এই পোষ্টের পুরোটা পড়বেন কেননা ভবিষ্যতে আপনার অ্যাকাউন্টের উপর বিভিন্ন ধরনের প্রভাব পড়তে পারে যার কারণে আপনার অ্যাকাউন্টটি যেকোনো ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে ফেসবুক কৃর্তপক্ষ কিন্তু কখনো কোন ফেসবুক ইউজার এর আইডি বিনা কারণে বন্ধ করে দিবে না অবশ্যই আপনার যদি কোন প্রকার সমস্যা থাকে আপনার আইডিতে তাহলে আপনার আইডিটি ফেসবুক তাদের ডাটা লিস্ট থেকে বন্ধ করে দিবে এবং আপনি সেই ফেসবুক একাউন্টে আর ব্যবহার করতে পারবেন না।

আমাদের বর্তমান সময়ে আমরা যে ফেসবুকে ‌ সমস্যাটির সম্মুখীন আমরা হচ্ছি তার বিশেষ দুটি কারণ হচ্ছে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট লক এবং অন্যটি হচ্ছে ডিজেবল এই দুটি সমস্যার সম্মুখীন বর্তমান সময়ে অনেকেই হচ্ছে কেননা তারা জানে না যে তারা কি ভুল কাজ গুলো ফেসবুকে করতেছে এবং যার কারণে ফেসবুক একাউন্টটি কোন প্রকার নোটিফিকেশন ছাড়া একদম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে আজকে আমরা জানবো যে কি কি কাজের কারণে আমাদের এই সমস্যাগুলো হচ্ছে বা হতে পারে।

ফেসবুক ব্যবহার বিধি মান্য এবং অমান্য ?

ফেসবুক কৃর্তপক্ষ কখনো চায় না যে তাদের একটি ইউজার তাদের সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করা বন্ধ করুন বরং তারা চাচ্ছে যে মানুষ যেন তাদের সোশ্যাল মিডিয়াতে খুব বেশি পরিমানে ব্যবহার করে তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী কিন্তু অনেকেই মনে করেন যে ফেসবুক ইউজার বেশি হওয়ার কারণে হয়তো আমাদের ফেসবুক আইডি গুলো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে এই ধারণাগুলো একদমই ভুল কেন না আপনি ভুল কাজ করার কারণে শুধুমাত্র আপনার অ্যাকাউন্টটি নষ্ট হবে যদি আমি কখনো আমার ফেসবুক আইডি দিয়ে কোন প্রকার ভুল কাজ না করে এবং ফেসবুক ইনস্ট্যান্ড মেনে চলি তাহলে কিন্তু আমার ফেসবুক আইডি কখনো কোন প্রকার সমস্যা হবে না।

যখনই আপনি তাদের নীতিমালা লঙ্ঘন করবেন তাৎক্ষণিক তারা আপনার ফেসবুক আইডির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে কেননা তারা সবসময় চায় তাদের ফেসবুক সোশ্যাল মিডিয়াতে সবসময় সুন্দর রাখতে এবং পরিবেশটি ভালো রাখতে আমরা যেকোন কাজে চাই যেন পরিবেশ ঠিক ভাল থাকে সেই রকম ফেসবুকে চায় তাদের ফেসবুক সবসময় পরিবেশটি ভালো থাকুক এবং ইউজাররা ফেসবুক ব্যবহার করে আনন্দ পাক কিন্তু কিছু কিছু ইউজার রয়েছে যারা বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ছবি বার্তা ভিডিও শেয়ার করে থাকে যার কারণে ফেসবুকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন আইডি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

আপনি ফেসবুক ব্যবহার করলে কিন্তু আপনাকে সর্বপ্রথম শিখতে হবে না যে কিভাবে আমি ফেসবুক ব্যবহার করব যেকোনোভাবে আপনি ফেসবুক ব্যবহার করতে পারবেন তবে তাদের নীতিমালা লংঘন অবশ্যই মেনে চলতে হবে যেকোনো ওয়েবসাইট বা যেকোনো জিনিস এর একটি নীতিমালা লংঘন থাকে সেটি যদি আপনি অমান্য করেন তাহলে কিন্তু আপনাকে তাড়া তাৎক্ষণিক যে কোন ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।

আগের সময় যেকোন ফেসবুক আইডি এর অ্যাকসেস নেওয়া যেত কিন্তু বর্তমান সময়ে ফেসবুক তাদের কমিউনিটি খুব ভালোভাবে আপডেট করেছে যার কারণে বর্তমান সময়ে কোন ভাবে অন্য কারো আইডি বিনা পারমিশনে আপনি নিতে পারবেন না এবং যদি আপনি তার আইডিটি নিতে সক্ষম হন তাহলে আপনার অনেক কিছু প্রয়োজন হবে এবং এইগুলো কিন্তু অন্য কেউ কখনও জানতে পারবে না যদি আপনার সেই লোকটি পরিচিত হয় আপনার ফেসবুক আইডির পাসওয়ার্ড এইগুলো জানে তাহলে শুধুমাত্র আপনার অ্যাকাউন্ট অ্যাক্সেস সে নিতে পারবে।

তবে এখন যদি আপনার ফেসবুক পাসওয়ার্ড অন্য কেউ জানে তাহলেও কিন্তু সে আপনার একাউন্ট কার ফোন দিতে লগইন করতে পারবে না ফেসবুক খুব সুন্দর একটি আপডেট এনেছে কিছুদিন আগে এই আপডেটটি করার কারণে ইউজারদের অনেক উপকার হয়েছে যদি তাদের পাসওয়ার্ড অন্য কেউ জানে তাহলে কিন্তু কখনো তার আইডিটি কোন অন্য ডিভাইসে লগইন করতে পারবে না এর জন্য তার প্রয়োজন হবে একটি নতুন কোড যেটি শুধুমাত্র আপনি ছাড়া অন্য কেউ জানতে পারবে না।

আরও পড়ুনঃ
আপনি কি ফেসবুক মার্কেটিং করে ইনকাম করতে চান ? তাহলে দেখুন ফেসবুক থেকে ইনকাম করার সেরা দুইটি উপায় পার্ট ১

আমরা ফেসবুক বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করে থাকি সেটি বিজনেস হোক বা সাধারণভাবে হোক অথবা সময় কাটানোর জন্যই হোক যদি আমরা সব সময় ভালো ভাবে ফেসবুক ব্যবহার করি এবং তাদের কোনো কমিউনিটি লংঘন না করি তাহলে কিন্তু আমাদের ফেসবুক আইডিটি কোন প্রকার সমস্যা হবে না কিন্তু আপনার অজান্তেই বিভিন্ন ধরনের সমস্যা বা তাদের নীতিমালা লংঘন হয়ে যাচ্ছে যার কারণে পরবর্তী সময় আপনাকে বিনা নোটিশে ফেসবুকের একাউন্টটি ব্যান বা বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে।

কেনো ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হচ্ছে ?

সমস্যা হওয়ার সর্ব প্রথম কারণটি হচ্ছে তাদের নীতিমালা লংঘন যদি আপনি তাদের নীতিমালা লংঘন করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেওয়া হবে এবং পরবর্তী সময় আপনার অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে ফেসবুক থেকে যদি তার আগে আপনি এই কাজগুলো থেকে বিরত না হন তাহলে কনফার্ম আপনার আইডিটি ফেসবুক থেকে বন্ধ করে দেবে এবং আপনি কিছু ভুল কাজ করার পর যদি সেটি বুঝতে পারেন এবং পর পরবর্তী সময়ে সেই কাজটি আর না করেন তাহলে আপনার একাউন্টে তে কোন প্রকার সমস্যা পরবর্তী সময় দেখা যাবে না।

আমরা সাধারণত ফেসবুক আইডি তৈরি করার সময় বিভিন্ন ধরনের ভুল কাজ করে থাকি তার জন্য পরবর্তী সময় আমাদের অনেক পরিমান ক্ষতি হয়ে থাকে যেমন ধরুন আমাদের একটি ফেসবুক আইডি যদি কোনো কারণে লক হয়ে যায় তাহলে কিন্তু আমাদের বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন সেখানে সাবমিট করতে হয় কিন্তু যখন আমরা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করি তখন ভুয়া বা মিথ্যা যার কোন অস্তিত্ব নেই এইরকম কিছু ইনফরমেশন আমরা অ্যাকাউন্টটি তৈরি করার সময় সাবমিট করি।

যার কারণে পরবর্তী সময় আপনি যখন আপনার একাউন্টটি ফিরিয়ে আনার জন্য তথ্য সাবমিট করতে যাবেন তখন কিন্তু আর সেই ভোর তথ্যগুলো কাজে লাগবে না অবশ্যই তাদেরকে সঠিক তথ্য দিতে হবে তাহলে আপনাকে তারা আইডিটি ফিরিয়ে দিতে পারে ফেসবুক আইডি যখন তৈরি করি অবশ্যই সকল তথ্য সঠিক দেওয়া দরকার এবং যে তথ্যগুলো আপনার সবসময় মনে থাকবে এরকম তথ্য সাবমিট করবেন তাহলে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে যদি কোন প্রকার সমস্যার কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয় লক করে দেওয়া হয় তাহলে আপনি সেই ইনফরমেশন গুলো আবার রি-সাবমিট করে আপনার একাউন্টে ফিরিয়ে আনতে পারবেন।

যদি কখনো আপনার ফেসবুক আইডি থেকে কোন প্রকার সমস্যা হয় তাহলে শুধুমাত্র আপনার যাবতীয় ইনফরমেশনগুলো দাঁড়ায় কিন্তু একাউন্টটি ফিরিয়ে আনতে পারবেন তা ছাড়া অন্য কোন উপায় কিন্তু আপনি তার অ্যাকাউন্টে আর ফিরিয়ে আনতে পারবেন না আমরা এখন নিচে দেখব যে ফেসবুকে অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় যে ভুলগুলো আমরা করে থাকি এবং এটি কিভাবে বর্তমান সময়ে আবার ঠিক করব আশাকরি সকলে মেনে চলার চেষ্টা করবেন তাহলে অ্যাকাউন্টটিতে কোন প্রকার সমস্যা হলে খুব সহজভাবে সেটি রিকভারি করতে পারবে।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় আমরা যে সাধারণ ভুল কাজ গুলো করে থাকি ?

ধরুন আমরা একটি ফেসবুক একাউন্ট তৈরি করব আপনি একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে চাচ্ছেন এবং সেটি আপনার নিজের জন্য এবং সেই একাউন্টে সারা জীবন ব্যবহার করতে চাচ্ছেন তো প্রথমে যখন আমরা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে যাব তখন আমরা কিছু সাধারণ ভুল কাজ করে থাকি যার কারণে পরবর্তী সময়ে আমাদের একাউন্টে কোন প্রকার সমস্যা দেখা গেলেও সিটি সমাধান করতে পারিনা কেননা আমাদের সত্যিকারে ইনফরমেশন গুলো আমাদের জানা নেই।

প্রথম যে আমরা ভুলগুলো করে থাকে সেই কিছু ভুল নিয়ে আমি এখন কথা বলব নিজের নাম ব্যবহার না করে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করে থাকি অর্থাৎ বিভিন্ন ধরনের সেলিব্রিটিদের নাম বা অন্য ধরনের কোন নাম আমরা ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় ব্যবহার করে থাকি এটি কিন্তু মারাত্মক একটি ভুল কাজ কেননা অবশ্যই আপনাকে ফেসবুক তৈরি করার সময় সব কিছু রিয়েল সত্যিকারে ইনফরমেশন শেয়ার করতে হবে তাদের সাথে হয়তো আপনি প্রথম অবস্থায় বুঝতে পারবেন না যে ভুয়া তথ্য শেয়ার করার কারণে আপনার কোন প্রকার ক্ষতি হবে কিনা।

কিন্তু আপনার অ্যাকাউন্ট দিতে যখন কোন প্রকার সমস্যা হবে তখন বুঝতে পারবেন যে হ্যাঁ আমি প্রথমে কি ভুল কাজ করেছিলাম যার কারণে এখন আমার আইডিতে আর ফিরিয়ে আনতে পারতেছিনা যখন আপনি ফেসবুক একাউন্ট তৈরি করবেন অবশ্যই আপনার রিয়েল নাম অর্থাৎ যদি সত্যিকারে নাম এবং আপনার জন্ম সনদের যে নামটি রয়েছে সেটি ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন তাহলে পরবর্তী সময় যদি আপনার অ্যাকাউন্টটি তে কোন প্রকার সমস্যা দেখা যায় এবং একাউন্টে যদি লক বা অন্য ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে তখন কিন্তু খুব দ্রুত এবং খুব সহজভাবে অ্যাকাউন্টের রিকভারি করতে পারবেন।

এরপর আমরা আরেকটি ভুল কাজ করে থাকি যেটির জন্য আমাদের ফেসবুক আইডি নষ্ট হয়ে গেলেও বা সাধারণ কোনো সমস্যা হলেও আমরা আর আইডিটি রিকভারি করতে পারি না সেটি হচ্ছে ভুয়া তারিখ সাবমিট করা যদি আপনার সত্যিকারে তারিখ অর্থাৎ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় আমাদের কিন্তু জন্ম সনদ এর তারিখ সময় এবং সাল জেনে থাকে যদি আপনি অ্যাকাউন্টটি তৈরি করার সময় ভুল কোন তারিখ সেখানে সাবমিট করেন ভালো কিন্তু পরবর্তী সময় আপনি বড় ধরনের বিপদে পড়তে পারেন অবশ্যই আপনার আইডি কার্ড বা জন্ম সনদের যেই তার একটি দেওয়া রয়েছে সেটি ব্যবহার করবেন।

এছাড়াও আরও বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন গুলো আমাদের থেকে নিয়ে থাকে ফেসবুক তাদের কমিউনিটি তে একাউন্ট তৈরি করার সময় অবশ্যই সব তথ্য সত্তিকারের দেওয়া চেষ্টা করবেন অনেকেই হয়তো ভুল তথ্য দিয়ে ফেসবুক একাউন্ট তৈরি করেন কিন্তু পরবর্তী সময়ে আপনার অ্যাকাউন্টের রিকভারি করার জন্য কিন্তু অবশ্যই আপনার প্রয়োজন হবে সবগুলো রিয়েল ইনফরমেশন এবং তথ্য যদি আপনি প্রথম অবস্থায় এই কাজগুলো না করেন তাহলে কিন্তু পরবর্তী সময়ে কোন প্রকার সমস্যা হলে বড় বিপদে পড়ে যাবেন।

যে ভুল কাজ গুলো আমরা অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় করি

  • সঠিক নাম ব্যবহার না করা৷
  • সঠিক জন্ম তারিখ ব্যবহার না করা৷
  • সঠিক মোবাইল নাম্বার অথবা ইমেইল ব্যবহার না করা৷
  • অর্জিনাল ফটো ছবি ব্যবহার না করা ইত্যাদি৷

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার রিস্ক হয়ে যায় কি কি কারনে

আমাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বিভিন্ন সময় রিস্ক হয়ে যায় ব্যবহার করা কেননা আমরা এত পরিমাণে ভুল কাজ করে থাকি যার কারণে আমাদের কমেন্ট ব্লক এবং পোস্ট ব্লক করে দেওয়া হয় যার কারণে আমরা এ দুটির একটিও করতে পারিনা এরকম হয়তো অনেকেরই হয়েছে এর জন্য বিশেষ কিছু কারণ রয়েছে যার জন্য আপনার এই সমস্যাগুলো যে কোন সময় হয়ে যেতে পারে তাই অবশ্যই এই গুলো মেনে চলার চেষ্টা করবেন আমি তার মধ্যে দুটি উদাহরণ এবং এক্সাম্পল আপনাদের সামনে দিচ্ছি এদুটি মেনে চলার চেষ্টা করবেন সবসময়।

ফেসবুকে আপনি যদি অতিরিক্ত পোস্ট করেন ধরুন আপনি একটি পোস্ট একাধিক জায়গায় করতেছেন আপনার নিজের প্রোফাইল সহ বিভিন্ন ফ্রেন্ডের প্রোফাইলে এবং বিভিন্ন ধরনের গ্রুপে একটি পোস্ট আপনি বারেবারে শেয়ার করতেছেন বা নতুন একটি পোষ্ট আপনি বিভিন্ন ধরনের গ্রুপে করতেছেন তাহলে কিন্তু আপনার এ ধরনের সমস্যা হতে পারে হঠাৎ করে দেখতে পারবেন যে আপনি আর কোন গ্রুপে পোস্ট করতে পারতেছেন না আপনাকে ব্লক করা হয়েছে এবং এটি মিনিমাম 24 ঘন্টা হয়ে থাকে।

একই পোস্ট বারবার করা যাবেনা এবং এক দিনে একাধিক পোস্ট করা যাবে না তাহলে আপনার আইডি রিস্ক হয়ে যেতে পারে সব সময় চেষ্টা করবেন যেন আপনার দ্বারা ফেসবুকে কোন প্রকার সমস্যা না হয় তাহলে কিন্তু আপনার ফেসবুক আইডিটি সিওর কোনো না কোনো সমস্যার সম্মুখীন হবে এরপরে হচ্ছে আপনি একাধিক যদি কমেন্ট করেন তাহলে কিন্তু যে কোন সময় আপনার কমেন্ট ব্লক হয়ে যেতে পারে যেটি হয়তো বর্তমান সময়ে অনেকেরই হয়ে থাকে কেননা আপনি যদি একাধারে কমেন্ট করেন এবং আপনার কমেন্টটি যদি ফেসবুক স্ট্যান্ড এর বিরুদ্ধে চলে যায় তাহলে কিন্তু আপনার আইডিতে একটি কমেন্ট ব্লক পড়ে যাবে।

প্রতিদিন চেষ্টা করবেন খুব কম পরিমাণে পোস্ট এবং কমেন্ট করতে তাহলে আপনার আইডি থেকে কোন প্রকার সমস্যা হবে আপনি ফেসবুক মার্কেটিং করেন বা বিজনেস করেন তাহলে আপনি আলাদাভাবে একটি ফেসবুক একাউন্ট তৈরি করে নিবেন এবং সেখান থেকে আপনি সেই কাজগুলো করবে যদি আপনার পার্সোনাল ফেসবুক একাউন্ট থেকে এই কাজগুলো করেন তাহলে কিন্তু আপনার অ্যাকাউন্টটি যেকোনো সময় যেকোনো ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে অবশ্যই চেষ্টা করেন ফেসবুকে কম পোস্ট এবং কমেন্ট করার জন্য।

ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যায় কি কারনে ? এবং কিভাবে আপনি ডিজেবল হওয়া ফেসবুক আইডি পুনরুদ্ধার করবেন

আজ আমাদের বর্তমান সময়ে ফেসবুক একাউন্ট বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হচ্ছে এবং ডিজেবল অথবা লক হয়ে যাচ্ছে তাদের জন্য আমি কিছু এখন সাজেশন করবো যেগুলো আপনি যদি মেনে চলেন এবং আপনার অ্যাকাউন্টটিতে যদি এই ধরনের কিছু হয়ে থাকে তাহলে খুব দ্রুত ঠিক করতে পারবেন এবং আপনার একাউন্টে খুব দ্রুত পুনরুদ্ধার করতে পারবেন এবং সব কাজ কিন্তু আপনি নিজেই করতে পারবেন যদি সম্পূর্ণ আপনি নিজে খুব ভালোভাবে বুঝে করতে পারেন।

উপরে আমরা আলোচনা করেছিলাম ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় আমরা যে সাধারণ ভুল কাজগুলো করে থাকি যদি আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় আপনি ভুয়া তথ্য দিয়ে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে থাকেন তাহলে এখন আপনি সচল অ্যাকাউন্টটিতে এই সবগুলো এডিট করে সঠিক তথ্য আবার সাবমিট করুন অর্থাৎ আপনি যদি আপনার ফেসবুক পার্সোনাল একাউন্টে ভুয়া তথ্য দিয়ে তৈরি করে থাকেন তাহলে অবশ্যই সেটি এখনো এডিট করুন সবকিছু ফেসবুকে কিন্তু আপনি সবকিছু এডিট করতে পারবেন খুব সহজে।

এবং সব তথ্য সঠিকভাবে দিন যেমন আপনার নাম জন্ম নিবন্ধনের তারিখ আরও বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন গুলো মোবাইল নাম্বার একটি ইমেইল এড্রেস এই গুলো সঠিকভাবে দিন কেননা ফেসবুক একাউন্টে যে কোন সময় যে কোন ধরনের সমস্যা হতে পারে এবং বর্তমান সময়ে কিন্তু খুবই কঠিন হয়ে যায় যদি আপনার একাউন্টে সাথে সমস্ত ইনফরমেশন গুলো না নিলে পুনরুদ্ধার করার জন্য খুবই কঠিন হয়ে যাবে অবশ্য এইগুলো এডিট করেনি এর জন্য আপনি চলে যান যদি আপনি ফেসবুক লাইট ব্যবহার করে থাকেন তাহলে হোমপেজে যাওয়ার পর উপরের দিকে দেখতে পারবেন থ্রি ডট মেনু রয়েছে।

আমি কিছু স্ক্রিনশট দিয়ে দিচ্ছি অবশ্যই এই স্ক্রীনশট গুলা ফলো করে আপনার অ্যাকাউন্টটিতে যদি কোন কিছু ভুয়া তথ্য দিয়ে থাকেন তাহলে এখনো সেই গুলো রিমুভ করে নতুন করে অরজিনাল ইনফরমেশন গুলো আবার সাবমিট করুন তাহলে আপনার জন্য খুবই ভালো হবে এবং পরবর্তী সময় আপনার একাউন্টে তে কোন প্রকার সমস্যা হলে এই ইনফর্মেশন গুলো যদি আপনি তো কোন রি-সাবমিট করেন তাহলে খুব সহজে আপনার অ্যাকাউন্টটি পুনরুদ্ধার হয়ে যাবে।

NEXT

আমরা বিভিন্ন সময়ে আমাদের ফেসবুক আইডিতে লাইক বা ফলো নেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের অটো লাইকার ব্যবহার করে থাকি যেগুলোর মাধ্যমে আমাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট দিতে অটোমেটিক অনেক পরিমানে লাইক বা বিভিন্ন ধরনের রিয়েক্ট চলে আসে যদি আপনি কখনো আপনার রিয়েল ফেসবুক আইডিতে এই ধরনের কোন অ্যাপস বা কোন ওয়েবসাইটে লগইন করেন এবং সেখান থেকে আপনার আইডিতে কোন কিছু শেয়ার করেন বা অটোমেটিকভাবে কিছু নিতে চান তাহলে কিন্তু আপনার আইডিটি দেখতে পারবেন 24 ঘন্টার ভিতরে নষ্ট হয়ে যাবে।

এটি কিন্তু 100% গ্যারান্টি সহকারে কেননা আপনি যখন সেই অ্যাপটি তে আপনার পার্সোনাল ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করবেন সেটি কিন্তু তাদের কন্ট্রোলে চলে যাবে ‌ এবং তারা আপনার সেই ফেসবুক একাউন্টে থেকে একাধিক ভাবে আরো বিভিন্ন ধরনের মানুষের ফেসবুক আইডি থেকে অটোমেটিক ভাবে রিয়েক্ট শেয়ার করবে অনেকেই মনে করেন যে নিজের ফেসবুক আইডিটি৷

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্লু ভেরিফিকেশন
করতে চাচ্ছেন এর জন্য আপনার আইডিতে অনেক পরিমাণে Facebook flowers প্রয়োজন হবে যেকোনো ধরনের অ্যাপসে কোন সময় আপনার ফেসবুক পার্সোনাল একাউন্টে লগইন করবেন না।

এই কাজগুলো করার জন্য সব সময় আলাদা বা অন্য কোন ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করবেন যদি আপনি কখনো ভুল করেও আপনার পার্সোনাল ফেসবুক অ্যাকাউন্ট এই ধরনের কোন অ্যাপস এ লগইন করেন তাহলে কিন্তু আপনার সেই একাউন্টে সাথে সাথে নষ্ট হয়ে যাবে আশা করি বুঝতে পেরেছেন এবং কোন সময় এ ধরনের অ্যাপসে নিজের ফেসবুক পার্সোনাল একাউন্টে লগইন করবেন না তাহলে পরবর্তী সময়ে কিন্তু খুব বড় মুশকিলে পড়ে যাবেন।

ফেসবুকে আপনি যদি বিভিন্ন ধরনের অশ্লীল ছবি ভিডিও শেয়ার করে থাকেন তাহলে কিন্তু মানুষ আপনার ফেসবুক আইডিতে বিভিন্ন ধরনের রিপোর্ট করবে যার কারণে ফেসবুক আপনার আইডিটি ডিজেবল সহ বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিতে পারে কোন সময় ফেসবুকে অশ্লীল কিছু ভিডিও অডিও ফটো শেয়ার করবেননা যে এগুলো মাধ্যমে অন্য কারো ক্ষতি বা সমস্যা হতে পারে বেশিরভাগ সময় আমাদের ফেসবুক অ্যাকাউন্টগুলো এই কারণেই ডিজেবল হয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ
দেখেনিন মোবাইল ফোনের কেনো খুব দ্রুত চার্জ শেষ হয়ে যাচ্ছে ? এবং কি কারোনে মোবাইলে চার্জ হতে অনেক সময় লাগে দেখুন বিস্তারিত

এছাড়াও রয়েছে ফেসবুকে অতিরিক্ত লিংক শেয়ারের কারণে কিন্তু ফেসবুক একাউন্ট লক হয়ে যাচ্ছে যদি আপনি একাধারে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট শেয়ার করতে থাকেন বিভিন্ন ধরনের গ্রুপ বা নিজের ফেসবুক একাউন্টকে তাহলে কিন্তু আপনার একাউন্টে যেকোনো সময় বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে যেমন ডিজেবল লক সাসপেন্ডেড আরও বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হতে পারে৷

তাই কখনো লিঙ্ক শেয়ার করবেন না যদি খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে থাকে তাহলে খুব অল্প শেয়ার করবেন অনেকেই আছে যারা অতিরিক্ত লিংক শেয়ার করে থাকেন ফেসবুকে এজন্য কিন্তু আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট টি তে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা যেতে পারে যেমনটি আমি উপরে বলেছি অতিরিক্ত পোস্ট এর কারনে আপনার একাউন্ট ব্লক হতে পারে কমেন্ট অথবা পোস্ট এর জন্য।

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট টি তে কখনো ভিডিও আপলোড করবেন না যদি কোন প্রকার ভিডিও আপলোড করেন তাহলে সেটি অবশ্যই নিজের ভিডিও হতে হবে কেননা ফেসবুকে কিন্তু একটি ওয়েবসাইট এবং সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম সব জায়গায় আমরা যদি কাজ করি যে কোন জায়গায় ধরুন আপনি ইউটিউবে কাজ করুন তাহলে কিন্তু আপনাকে অবশ্যই কপিরাইট ফ্রি ভিডিও গুলো আপলোড করতে হবে সেই রকম ভাবে আমরা ফেসবুকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ভিডিও আপলোড করে থাকি এবং সেই ভিডিও গুলো কালেক্ট করে থাকি বিভিন্ন ধরনের ফেসবুক গ্রুপ এবং পেজ থেকে।

যদি আপনি ফেসবুক পেজ এবং গ্রুপ থেকে একটি ভিডিও ডাউনলোড করে আপনার ফেসবুক প্রোফাইলে শেয়ার করেন তাহলে কিন্তু সেটি কপিরাইটিং হয়ে যাবে এর কারণে কিন্তু আপনার ফেসবুক আইডিতে যে কোন প্রকার সমস্যা হতে পারে তাই কোন প্রকার ভিডিও ফেসবুক অ্যাকাউন্টে আপলোড করবেন না এর পরবর্তীতে আপনি ভিডিওটি শেয়ার করতে পারেন আপনার টাইমলাইনে তাহলে কোন প্রকার সমস্যা হবেনা অবশ্যই মনে রাখবেন কখনো যেন আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে কোনপ্রকার ভিডিও আপলোড না হয় যদি কোন প্রকার ভিডিও আপলোড করেন তাহলে সেটি অবশ্যই নিজের ভিডিও হতে হবে।

Facebook account high security system tow- factor on

আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার জন্য আপনাকে সহজ একটি কাজ করে নিতে হবে তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট অন্য কেউ কখনো লগিন করতে পারবে না এর জন্য আপনাকে একটি সিস্টেম করে নিতে হবে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে সেটিং থেকে প্রথমে আপনি আপনার ফেসবুক লাইট এর থ্রি ডট মেনুতে চলে যান এবং তারপর সেটিং তারপর নিচের মত একটি স্ক্রিনশট দেখতে পারবেন।

এখানে যদি আপনার কোন মোবাইল নাম্বার না থাকে তাহলে একটি মোবাইল নাম্বার অ্যাড করে নেবেন এবং তারপর সেখানে ভেরিফিকেশন একটি করতে হবে আপনি কোড টি সাবমিট করার পরেই কিন্তু আপনার নাম্বারটি একটিভ হয়ে যাবে এবং এর পরবর্তী সময় থেকে আপনি যখন অন্য কোন ডিভাইস আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লগইন করবেন তখন আপনার এই নাম্বারটিতে একটি কোড আসবে এবং একটি দেওয়ার পরে কিন্তু সফল ভাবে আপনার একাউন্টে লগইন হবে তাছাড়া কিন্তু কোন ভাবে আপনার অ্যাকাউন্ট লগইন করতে পারবেন না।

এটি করার কারনে আপনার একাউন্ট কোনভাবে অন্য কেউ অ্যাক্সেস নিতে পারবে না এবং এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি সেটিং এটি অবশ্যই আপনার করে নেওয়া দরকার আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে পুরোপুরি নিরাপদ রাখার জন্য আশাকরি সকলেই করে নিবেন তাহলে আপনার ফেসবুক একাউন্টের পাসওয়ার্ড যদি অন্য কেউ জেনে যায় তারপরও কিন্তু সে লগইন করতে পারবেন আপনার একাউন্টি।

যখন আপনার ফেসবুক একাউন্ট ডিজেবল হয়ে যাবে তখন কিন্তু আপনাকে বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন সাবমিট করতে বলবে তো আপনার একাউন্টে যদি সকল ইনফরমেশন সত্যিকারের হয়ে থাকে তাহলে আপনি সেই গুলো একটি একটি করে সেখানে সাবমিট করে দিবেন তাহলে আশা করা যায় আপনার একাউন্টে খুব দ্রুত আপনাকে ফিরিয়ে দিবে।

এবং পোস্টে বলা সবগুলো কথা অবশ্যই মেনে চলার চেষ্টা করবেন তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টটি তে কোন প্রকার সমস্যা দেখা যাবে না আশাকরি আমাদের আজকের পোস্টে আপনি ভালভাবে বুঝতে পেরেছেন এবং অ্যাকাউন্ট সম্পর্কিত আরও কোন তথ্য জানার থাকলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন আপনার মতামত।

আর্টিকেল শেষ কথা

আশা করি আপনার কাছে আমাদের আজকের পোস্টটি ভাল লেগেছে এবং আপনার এই পোস্ট থেকে যদি কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয়ে থাকে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত জানিয়ে দিবে আমি সেটা সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করব এবং আপনার বন্ধুদের সাথে অবশ্যই এই পোস্টটি শেয়ার করবেন কেননা তারাও যেন জানতে পারে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপত্তা সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের তথ্য এবং আমাদের ওয়েবসাইটে আপনি প্রতিদিন ভিজিট করবেন বিভিন্ন ধরনের টিপস এবং ট্রিকস জানার জন্য সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন ধন্যবাদ সবাইকে।

About Admin

পড়াশোনার পাশাপাশি ব্লগিং করতে পছন্দ করি। এবং অনলাইনে টেকনোলজি সবসময় শেখার চেষ্টা করতেছি। আমি যতোটুকু জানি চেষ্টা করি আমার ওয়েবসাইটে শেয়ার করার জন্য।

View all posts by Admin →

2 Comments on “ফেসবুক অ্যাকাউন্ট কি কারণে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা হচ্ছে এবং অ্যাকাউন্ট তৈরি করার সময় যে ভুল কাজ গুলো আমরা করে থাকি দেখুন বিস্তারিত ২০২২”

  1. আপনার সাইটের ডিজাই এবং কন্টেন্ট কলিটি খুবই কার্যকারি। আমি অনেক উপকৃত হয়েছি আপনার সাইট ও কন্টেন্ট থেকে আশা করি অন্যরা উপকৃত হবে ।
    চাইলে আমার সাইটটি ভিজিট করতে পারেন Tips and Tricks

Leave a Reply

Your email address will not be published.