দেখেনিন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের জন্য সেরা ৬টি ফ্রি প্লাগিন ওয়েবসাইট প্রটেকশনের জন্য বিস্তারিত ২০২২

হ্যালো বন্ধুরা আসসালামুআলাইকুম কেমন আছেন সবাই আশা করি সকলেই ভাল রয়েছে ইনশাআল্লাহ আমিও খুব ভালো রয়েছি তাই আজকে আপনাদের সাথে আরো নতুন একটি পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম আশা করি এই পোস্ট থেকে যারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যবহার করেন এবং যাদের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট রয়েছে তারা অবশ্যই উপকৃত হবেন আমরা আজকে আলোচনা করব ওয়াডপ্রেস ওয়েবসাইটের বিশেষ কিছু প্লাগিন নিয়ে যে প্লাগিনগুলো হয়তো আমাদের সকলের প্রয়োজন হয়ে থাকে আশা করি আপনি আমাদের আজকের এই পোস্টটি থেকে ভালো কিছু জানতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট সম্বন্ধে তাই পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে ইনকাম করার অন্যতম একটি মাধ্যম হচ্ছে ওয়েবসাইট আমাদের কমবেশি সকলেই ওয়েবসাইট ভেবেছে এবং যারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ব্যবহার করেন অর্থাৎ অনেকেই রয়েছেন যারা ব্লগস্পট থেকে ওয়েবসাইট তৈরি করেন কিন্তু যারা ওয়াডপ্রেস থেকে ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের থিম অথবা প্লাগিন এর প্রয়োজন হয় বিশেষ করে আপনার বেশিরভাগ সময় প্রয়োজন হবে প্লাগিন আমরা আজকে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট এর প্রয়োজনীয় কিছু প্লাগিন নিয়ে কথা বলবো যে প্লাগিনগুলো আপনি যদি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটটিতে ব্যবহার করেন তাহলে বিশেষ কিছু উপকার পাবেন।

আমাদের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটটিতে আমরা যে প্লাগিনগুলো ব্যবহার করে থাকি একটি প্লাগিন এর মাধ্যমে কিন্তু আমাদের অনেক পরিমাণে কাজ হয়ে যায় অর্থাৎ ওয়েবসাইটের অনেক কিন্তু একটি প্লাগিন এর ভিতর থাকে আপনি যে প্লাগিনগুলো আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে ব্যবহার করবেন অবশ্যই প্লাগিন গুলো ঠিকঠাক থাকা লাগবে কেননা অনেক সময় আমরা হয়তো ভুল প্লাগিন ইন্সটল করি যার কারণে আমাদের ওয়েবসাইটের বিভিন্ন ধরনের জিনিস নষ্ট হয়ে যায় অনেক ধরনের প্লাগিন এর রয়েছে যেগুলো আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটটিতে ইন্সটল করেন তাহলে কিন্তু দেখতে পারবেন যে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা যাচ্ছে।

কিছু কিছু প্লাগিন রয়েছে যেগুলো ওয়েবসাইট এর স্পিড কমিয়ে দেয় এছাড়াও আমরা আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব যে কাজগুলো করলে আপনাদের ওয়েবসাইট রকেটের গতিতে চলবে অর্থাৎ খুবই স্পিড থাকবে ওয়েবসাইট ভিজিট করার সাথে সাথে যেন পুরো পেজ লোডিং হয়ে যায় আমাদের অনেকেরই ওয়েবসাইট রয়েছে যে ওয়েবসাইটগুলোতে সাধারন একটি পোস্ট ভিজিট করলে অনেক পরিমানে সময় লেগে যায় সেই পোষ্টটি পুরোপুরি ভাবে রি-লোড হতে যদি আপনি একটি প্লাগিন ব্যবহার করেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে তাহলে কিন্তু এই সমস্যা থেকে খুব সহজভাবে আপনি সমাধান পেয়ে যাবেন আমরা আজকে এই প্লাগিনটি নিয়েও আপনাদের সাথে আলোচনা করব যেন আপনারা এই প্লাগিন ব্যবহার করে আপনাদের ওয়েবসাইটে স্পিড আরো দ্রুত করতে পারেন।

সবাই চিই আমাদের ওয়েবসাইট গুলো সব সময় সৌন্দর্য রাখতে এবং ওয়েব সাইটে বিভিন্ন ধরনের ফিউচার এড করতে জানো মানুষ এই পিকচার গুলো দেখে আমাদের ওয়েবসাইট প্রতিনিয়ত ডিজিট করে সবচেয়ে বড় সমস্যাটি হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটের যদি পেজ স্পিড লোডিং অনেক বেশি লাগে অর্থাৎ একটি পোস্ট পুরোপুরিভাবে লোডিং হতে যদি অনেক সময় লেগে যায় তাহলে কিন্তু ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে পরবর্তী সময় আর ডিজিট করে না কেননা আপনি যে বিষয়টি নিয়ে আপনার ওয়েবসাইটে আর্টিকেল পাবলিসিটি করবেন সেই আর্টিকেল বা সেই রিলিটিড গুগোল কিন্তু আরও অনেক পরিমাণে কনটেন্ট রয়েছে যদি আপনার ওয়েব সাইটটিতে প্রবেশ করতে অনেক পরিমানে সময় লেগে যায় তাহলে সেই ভিজিটর টি আপনার ওয়েবসাইটের ব্রাউজিং কেঁটে দিয়ে অন্য একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবে।

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটে বিভিন্ন ধরনের কাজ না করলেও চলবে যদি আপনি কিছু প্লাগিন ব্যবহার করেন এই প্লাগিনগুলো কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি খুব ভালোভাবে পরিচালনা করবে এবং অনেক পরিমাণে কাজ প্লাগিনগুলো নিজেই করে নিবে আপনাকে আর খুব বেশি কাজ করতে হবেনা আপনার ওয়েব সাইটটিতে তো তাহলে চলুন এখন আমরা সমস্ত প্লাগিনগুলো দেখিনি এবং কোন কোন প্লাগিন এর ফিউচার সমূহ এবং কি কি কাজ করবে প্লাগিনগুলো বিস্তারিত ভাবে দেখিনেই এখান থেকে আপনার কাছে যদি কোন ধরনের প্লাগিন পছন্দ হয়ে থাকে এবং এখানে কিন্তু পেইড প্লাগিন এবং ফ্রি প্লাগ-ইন দুটো থাকবে যেটা আপনার পছন্দ হয় সেটি কিন্তু আপনি ফ্রিতে অথবা কিনে নিতে পারেন বিভিন্ন ধরনের মার্কেটপ্লেস থেকে।

WP Rocket এর কাজ কি কি ? পেজ স্পিড অপটিমাইজেশন

আমরা সর্বপ্রথম কথা বলব ওয়েবসাইট এর স্পিড নিয়ে কেননা আমাদের ওয়েবসাইটে যে কোন কাজ করার জন্য এবং ওয়েবসাইটের ভিজিটর বৃদ্ধি করার জন্য আগে ওয়েবসাইট এর স্পিড এর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে কেননা ওয়েবসাইটের স্পিডে কিন্তু ভিজিটর ওয়েবসাইটটিতে আসতে সাহায্য করবে যদি আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড অর্থাৎ পেজ স্পিড হতে অনেক পরিমানে সময় লেগে যায় তাহলে কিন্তু এটি বিড়াট একটি সমস্যা অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের পেজ স্পিড সব সময় সঠিক রাখার চেষ্টা করবেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে যেকোনো ভিজিটর আসলে সেটি খুব ভালোভাবে আপনার পোস্ট গুলো পড়তে পারবে এবং পরবর্তী সময় আপনার ওয়েবসাইটটি শেষ ডিজিট করবে।

অনেকেই হয়তো ভাবতে পারেন যে আমার ওয়েবসাইট এর স্পিড কেন কমে যাচ্ছে এর জন্য কিন্তু বিশেষ কয়েকটি কারণ রয়েছে যে কাজগুলি করার কারণে আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং টাইম বেড়ে যাচ্ছে তো আমি সংক্ষিপ্ত সেই কাজগুলোর কথা এই পোস্টে উল্লেখ করব আশাকরি এই গুলো মেনে চললে তাহলে আপনার ওয়েবসাইটটিতে খুব দ্রুত ব্রাউজিং করা যাবে এবং যেকোন ব্রাউজার দ্বারা আপনার ওয়েবসাইটে ব্রাউজিং করতে খুব কম পরিমানে সময় লাগবে যদি আপনি আপনার এই ওয়েবসাইটটিতে কাজগুলো করেন তাহলে আশা করি কোন ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটের ওপর বিরক্ত হবে না এবং তার কাছে যদি আপনার ওয়েবসাইট পোস্টগুলি ভালো লাগে তাহলে সে পরবর্তী সময় আপনার ওয়েবসাইটে আবার ভিজিট করবে।

ওয়েবসাইটে যে যে কারণগুলোর কারণে আপনার ব্রাউজিং করতে সমস্যা হবে অর্থাৎ একটি পোস্ট পুরোপুরি ভাবে লোডিং হচ্ছে অনেক পরিমানে সময় লেগে যাবে যদি আপনি নিচের কাজগুলো মেনে চলেন তাহলে আশাকরি আপনার ওয়েবসাইটে সাধারন ভাবে ব্রাউজিং করতেও অনেক পরিমানে সময় লাগবে না নিচে কিছু কাজ আমি বলে দিচ্ছি অবশ্যই এইগুলো আপনার যেকোন ওয়াডপ্রেস ব্লগার ওয়েবসাইট হোক না কেন অবশ্যই মেনে চলার চেষ্টা করবেন তাহলে উপকৃত হবেন।

যেকোনো ওয়েবসাইটের সর্বপ্রথম যে কারণে টির জন্য পেজ লোডিং টাইম বেড়ে যায় তা হচ্ছে ইমেজ অর্থাৎ আপনার ওয়েবসাইটে আপনি যে ছবিগুলো ব্যবহার করেন পোষ্টের জন্য পোস্টের ভিতরে এবং থাম্বেল যে ছবিগুলো আপনি ব্যবহার করেন সেই থাম্বেল এবং ছবিগুলোর জন্য কিন্তু আপনার একটি পোস্ট লোডিং হতে অনেক টাইম লেগে যায় এছাড়াও আপনার হোমপেজে লোডিং হতেও কিন্তু অনেক সময় লেগে যায় বিভিন্ন ওয়েবসাইটে আমি এটি লক্ষ করেছি যদি আপনার ওয়েবসাইটে এই সমস্যাগুলো থাকে তাহলে আপনাকে যা করতে হবে আপনি অবশ্যই কম মেগাবাইট এর ইমেজ ছবি ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন অর্থাৎ অনেকেই রয়েছেন যারা নিজে থাম্বেল তৈরি করেন ওয়েবসাইটের জন্য কিন্তু পরবর্তী সময় দেখা যায় যে নিজে তৈরি করা থাম্বেল গুলো অনেক বেশি মেগাবাইট অর্থাৎ অনেক পরিমাণে বেশি এমবি।

আরও পড়ুনঃ
কিভাবে ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন ব্লগার ওয়াপকিজ ওয়ার্ডপ্রেস থেকে দেখুন বিস্তারিত

আপনাকে যা করতে হবে আপনি যে কোনো ছবি বা থাম্বেল আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে তৈরী করেন না কেন অবশ্যই সেটা পরবর্তী সময়ে অর্থাৎ পুরোপুরিভাবে তৈরি করার পর সেটি কম্প্রোমাইজ করে নিবেন আপনি যদি অনলাইনে সার্চ করেন বিভিন্ন ধরনের ইমেজ কম্প্রোমাইজ ওয়েবসাইট পাবেন যে ওয়েবসাইটগুলোতে আপনি সেই ইমেজটা আপলোড করবেন যদি সেই ছবিটির কেবি হয়ে থাকে 500kb তাহলে যখন আপনি সেই ছবিটি কম্প্রমিসেশন করবেন তখন কিন্তু শেষ হবে টির মেগাবাইট এসে দাঁড়াবে 100kb এর থেকে কিছু উপরে এখন অনেকেই হয়তো বলতে পারেন যে তাহলেতো ছবির কোয়ালিটি নষ্ট হয়ে যাবে পুরোপুরি ভাবে নষ্ট হবে না কিছুটা সমস্যা হতে পারে তবে এইটুকু জন্য কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং টাইম আর বেড়ে যাচ্ছে না যদি আপনি এই কাজটুকু করেন তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি যেকোন মানুষ ব্রাউজিং করতে সুবিধা পাবে।

অবশ্যই চেষ্টা করবেন যে কোন ছবি ওয়েবসাইটে আপলোড করার আগে সেই ছবিটি ভালোভাবে কম্প্রোমাইজ করে নিতে তাহলে কিন্তু আপনার ছবির জন্য ওয়েবসাইট এর পেজ স্পিড লোডিং বেড়ে যাবে না যদি সাধারণভাবে আপনি একটি ইমেজ তৈরি করেন কোন অ্যাপ এর মাধ্যমে তাহলে পরবর্তী সময় সেটি যদি আপনি লক্ষ্য করে দেখেন যে একটি ছবি কিন্তু 1mb মেগাবাইট এর ও হতে পারে যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটের কোন একটি পোস্টে 1mb মেগাবাইটের কোন ছবি ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড মিনিমাম 10 শতাংশ কমে যাবে তাই অবশ্যই যেকোনো ছবি ওয়েবসাইটে আপলোড করার পূর্বে ভালোভাবে compromisation করে নিবেন এবং সব সময় চেষ্টা করবেন যে কম KB ভিতরে ছবি আপলোড করা।

আপনার যদি সার্ভারের কোন প্রকার সমস্যা থাকে যেমন ওয়েব হোস্টিং সমস্যা যদি থাকে তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েব সাইটের যে কোন পেজের স্পিড খুব কমে যাবে এবং লোডিং টাইম বেড়ে যাবে সবসময় চেষ্টা করবেন ভালো কোম্পানির হোস্টিং ক্রয় করার জন্য তাহলে এই সমস্যাগুলো আপনার ওয়েবসাইটে কোন সময় দেখা যাবে না অনেকেই আছেন যারা কম টাকায় ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করেন বিশেষ করে হোস্টিং এর দিকে লক্ষ্য রাখবেন যেন আপনার হোস্টিং টি স্পিড খুব ভালো থাকে তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের কোন প্রকার স্পিড সমস্যা হবেনা হোস্টিং এর ক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষ হয়তো ভাবেন যে কম টাকায় আমরা হোস্টিং কিনে এবং সেই হোস্টিং গুলো ব্যবহার করি কিন্তু আপনি যখন আপনার ওয়েবসাইটটিতে ব্রাউজিং করেন কোন প্রকার যদি সমস্যা না থাকে শুধুমাত্র যদি হোস্টিং সমস্যা থাকে তাহলেও কিন্তু যে কোন পেজ লোডিং হতে অনেক পরিমানে সময় লাগবে তাই চেষ্টা করুন ভালো হোস্টিং ব্যবহার করার জন্য তাহলে এই সমস্যা গুলো কখনোই হবে না।

এরপরে সমস্যাটি হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটে যখন কোন প্রকার বিজ্ঞাপনসহ করাবেন বিভিন্ন ধরনের বিজ্ঞাপন হতে পারে যেমন ধরুন আমাদের ওয়েবসাইটে যদি আমি গুগল এডসেন্স এর বিজ্ঞাপন শুরু করায় এবং অতিরিক্ত বিজ্ঞাপনসহ করানোর কারণের কিন্তু ওয়েবসাইটের পেজ লোডিং টাইম অনেকটাই বেড়ে যায় আপনি যদি একটি পেজে একাধিকবার অনেকগুলো বিজ্ঞাপন শো করান তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের সেই পেজটি লোড হতে অনেক পরিমাণ সময় লেগে যাবে তাই চেষ্টা করবেন খুব বেশি বিজ্ঞাপন পেজে না শো করানোর জন্য খুব কম পরিমাণে বিজ্ঞাপন শো করাবেন আপনার যেকোন ওয়েবসাইট হোক না কেন তাহলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটটি লোডিং হতে খুব কম সময় লাগবে

আমি যদি এই প্লাগিনটি অর্থাৎ WP Rocket‌ প্লাগিনটি আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু ওয়েবসাইটের স্পিড খুব বাড়িয়ে দিবে অর্থাৎ লোডিং টাইম কমিয়ে দিয়ে সাধারন যে স্পিড সেটি কিন্তু অনেক পরিমাণে বাড়িয়ে দিবে আপনার যেকোন ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট হোক না কেন আপনি সবসময় চেষ্টা করবেন এই প্লাগিনটি ব্যবহার করার জন্য তাহলে কিন্তু অনেক পরিমাণ উপকৃত হবেন শুধুমাত্র এই প্লাগিন ব্যবহার করার জন্য আমি নিজেও কিন্তু আমার ওয়েবসাইটে প্লাগিন ব্যবহার করি এতে কিন্তু ওয়েবসাইট পেজ কেসিং ইমেজ সবসময় রিফ্রেশ হতে থাকে যার কারণে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে খুব দ্রুত ব্রাউজিং করা যায়।

আমি বলব আপনার যেকোনো ধরনের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট হোক না কেন অবশ্যই চেষ্টা করবেন এই প্লাগিনটি ব্যবহার করার জন্য এবং প্লাগিনটি ওয়েবসাইটে এক্টিভ করার পর খুব ভালোভাবে সেটিং করে নিবেন অর্থাৎ যাকে বলা হয় কাস্টমাইজেশন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে এটি খুব ভালোভাবে কাজ করবে এই প্লাগিনটি হচ্ছে কিন্তু পেইড প্লাগিন আপনি কিনে নিয়ে ব্যবহার করতে পারেন তাহলে সবচেয়ে ভালো হবে আমি জিপিএল টি ব্যবহার করতেছি আমার ওয়েবসাইটে তবে আমি বলব আপনাকে আপনি ওরজিনাল টি ক্রয় করে ব্যবহার করুন কেননা জিপিএল টি যদি আপনি ব্যবহার করেন তাহলে ওয়েবসাইটে যেকোনো সময় যেকোনো ধরনের সমস্যা হতে পারে তো কারো যদি এই জিপিএল প্লাগিনটি প্রয়োজন হয় তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে জানাবেন আমি আপনাকে একদম বিনামূল্যে এই প্লাগিনটি দিব।

Rank Math এই প্লাগিনটির উপকরণ কি কি

বর্তমান সময়ে ওয়েবসাইটের জন্য সেরা একটি কাজ হচ্ছে ওয়েবসাইটের এসইও এবং অনেকে হয়তো ভালো ধরনের এসইও প্লাগিন খুঁজে থাকেন ওয়েব সাইটে ব্যবহার করার জন্য আপনি যদি গুগোল বা আপনার ওয়েব সাইট এর এডমিন প্যানেল থেকে প্লাগিন হিস্টোরিতে সার্চ করেন এসইও লেখে তাহলে কিন্তু অনেক এসইও রিলিটিড পেয়ে যাবেন তবে সব প্লাগিন কিন্তু ভালো নয় এবং সব প্লাগিন কিন্তু আপনার ওয়েব সাইটের কাজগুলো খুব ভালোভাবে করতে পারবেনা আমি আমার ওয়েবসাইটের জন্য ব্যবহার করি এই প্লাগইনটি রেঙ্ক ম্যাথ এই প্লাগিনটি অন্যান্য প্লাগিন এর চেয়ে খুব ভালো কাজ করবে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য এটি চাইলে কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের জন্যে আপনি ব্যবহার করতে পারেন এবং এটি ফ্রি ও পেইড ভার্সন দুটোই কিন্তু রয়েছে আপনার ইচ্ছে যেটি ব্যবহার করতে চাই সেটি কিন্তু ব্যবহার করতে পারেন।

আমার কাছে অন্যান্য এসইও রিলিটিড প্লাগিনগুলো থেকে এই প্লাগিনটি অনেকটাই ভালো লেগেছে কেননা আপনি অন্যান্য এসইও প্লাগিনগুলো থেকে এই প্লাগইনটি তে কিন্তু অনেক পরিমাণে বেশি ফিউচার দেখতে পাবেন এবং যে ফিউচার গুলো আপনার একটি ব্লগ ওয়েবসাইট চালানোর জন্য খুবই প্রয়োজন এবং জরুলি সাধারণত আমরা যদি অন্য কোন প্লাগিন ব্যবহার করে থাকি এসইও ক্ষেত্রে যেমন টা Yoast SEO প্লাগিন যদিও এটি কিন্তু ওয়েবসাইট এর ক্ষেত্রে অনেক ভালো কাজ করে তবে কিন্তু আপনি এই প্লাগিন নিতে রেঙ্ক ম্যাথ এর মত সমস্ত ফিউচার দেখতে পারবেন না এখানে সাধারন যে ফিউচার গুলো রয়েছে তা হচ্ছে শুধুমাত্র ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো দ্রুত ইন্ডেক্স করা এবং কিছু সাধারন ফিউচার।

কিন্তু আপনি যদি এই প্লাগিনটি ব্যবহার করেন এখানে কিন্তু অনেক পরিমাণে বেশি ফিউচার রয়েছে যেমন যেমন ধরুন আপনার একটি এসইও ফ্রেন্ডলি আর্টিকেল লিখতে প্লাগিনটি আপনাকে সাহায্য করবে এবং একটি পোস্টে কোন জায়গায় কি কি সমস্যা রয়েছে এই সমস্যাগুলো কিন্তু আপনি এই প্লাগিন এর মাধ্যমে দেখতে পাবেন যা অন্য কোন প্লাগিন দ্বারা আপনি দেখতে পারবেন না এছাড়াও রয়েছে রিডাইড মনিটর আরো বিভিন্ন ধরনের ফিউচার এবং আমাদের ওয়েবসাইটে একটি পোস্ট করা হয়েছে ইনস্ট্যান্ট ইন্ডিক্স আপনি এই প্লাগইনটি ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু খুব সহজভাবে ইনস্ট্যান্ট ইন্ডেক্স গুগোল প্লাগিনটি ব্যবহার করতে পারবেন কেননা এই প্লাগইনটি কিন্তু এর আওতাধীন।

মোট কথা এসইও রিলিটিড সম্পর্কিত যত প্লাগিন রয়েছে সবচেয়ে আমি আপনাকে বলব এই প্লাগইনটি ভালো হবে আপনার, ওয়েবসাইটের জন্যে অনেক ধরনের ফিউচার রয়েছে আপনি যখন একটি পোষ্ট লিখবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্য তখন যদি আপনি পোষ্ট লেখার নিচে অর্থাৎ ওয়েবসাইটে এডমিন প্যানেলে যাওয়ার পর অ্যাড নিউ পোস্ট এবং পোস্ট বক্স এ আপনার পোস্ট লেখার পর সবার নিচের দিকে যদি লক্ষ্য করেন তাহলে দেখতে পারবেন আপনার পোস্টটি মোট কত পার্সেন্ট ইউনিক এবং কত পারসেন্ট এসইও হয়েছে ‌ এছাড়াও সেখান থেকে আপনি দেখতে পারবেন আপনার পোস্টটি আরো সৌন্দর্য এবং কোয়ালিটিফুল করার জন্য কি কি কাজ করতে হবে সেগুলো কিন্তু আপনাকে সেখানে বলে দেওয়া হবে যে সিস্টেমটি অন্য কোন প্লাগিন আপনি দেখতে পারবেন না।

আশা করি আপনার কাছে এই প্লাগইনটি ভালো লাগবে আমি নিজেও কিন্তু আমার ওয়েবসাইটগুলোতে এই প্লাগিনটি ব্যবহার করে থাকি এবং সকল ক্ষেত্রে কিন্তু এই প্লাগইনটি খুবই ভালো কাজ করে এটির কিন্তু ফ্রি ভার্সন এবং পেইড ভার্সন দুটোই রয়েছে আপনি চাইলে নরমাল ওয়েবসাইটগুলোতে যেগুলো ওয়েবসাইটে আপনি খুব বেশি কাজ করেন না সেইগুলো তো ফ্রি ভার্সন ব্যবহার করতে পারেন এর জন্য আপনাকে যেতে হবে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে এবং সেখানে গিয়ে প্লাগিন হিস্টরি থেকে যদি সার্চ করেন Rank Math তাহলে আপনি সেখানে কিন্তু এই প্লাগিনটি দেখতে পারবেন এবং সেটি হচ্ছে ফ্রী ভার্শন প্লাগিন ইন্সটল করে আপনি যথাযথভাবে সেটআপ করে নিবেন আপনার ওয়েবসাইটের জন্য।

Google sitekit by Google প্লাগিনটির কাজ কি কি এবং উপকরণ কি

এই প্লাগিনটি যদিও গুগলের নিজস্ব তবে শুধুমাত্র ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের জন্য প্রযোজ্য হবে এই প্লাগিনটি এটি দ্বারা আপনি গুগলের যে সার্ভিস গুলো রয়েছে যে সার্ভিস গুলো আপনার ওয়েবসাইটের সাথে আপনি খুব সহজভাবে সংযোগ করতে পারবেন গুগোল এ যে সার্ভিস গুলো আমরা ব্যবহার করে থাকি অর্থাৎ

  • Google search consol = গুগল সার্চ কনসোল।
  • Google Adsense = গুগল এডসেন্স।
  • Google Analytics = গুগোল এনেলাইটেক্স৷
  • Google page speed = গুগোল পেজ স্পীড৷

এই সার্ভিসগুলো কিন্তু আমাদের ওয়েবসাইটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এর জন্য আমাদেরকে আলাদা আলাদা পদ্ধতি অবলম্বন করতে হয় এবং আলাদাভাবে ব্রাউজিং করতে হয় এই কাজগুলো করার জন্য যদি আপনি এই প্লাগইনটি আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু শুধুমাত্র আপনার ওয়েবসাইটের এডমিন প্যানেল থেকে সমস্ত সার্ভিসগুলোর ফলাফল দেখতে পারবেন অর্থাৎ আপনি যদি এই প্লাগইনটি আপনার ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করেন শুধুমাত্র প্রথমবার আপনাকে এই সার্ভিসগুলো একটি ইমেইল একাউন্টের মাধ্যমে একটিভ করে নিতে হবে তাহলে কিন্তু হয়ে যাবে এবং পরবর্তী সময় আপনাকে বারেবারে অন্য পদ্ধতিতে সেই সার্ভিসগুলো দেখতে হবে না যেমনটা আমরা যদি Google search consol দেখি আমাদেরকে কিন্তু গুগল সার্চ করলে একটি ব্রাউজিং করতে হয়।

যদি আপনি এই প্লাগিনটি আপনার ওয়েব সাইটে ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু আপনাকে আর আলাদাভাবে এই গুলো দেখতে হবে না আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে কিন্তু এই রুলস গুলো দেখতে পারবেন অর্থাৎ আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটিতে মোট কতটি গুগল থেকে ক্লিক এসেছে যেটা আমরা গুগল সার্চ কনসোল করে দেখতে পারি সেটি আপনি আপনার ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেল থেকে সরাসরি ভাবে দেখতে পারবেন পারবেন আপনাকে আর আলাদাভাবে কোন ব্রাউজিং করতে হবে না এবং গুগল এডসেন্স আমাদের গুগোল অ্যাডসেন্সে মোট কি অবস্থায় রয়েছে এগুলো দেখার জন্য কিন্তু আমরা প্রতিনিয়তঃ গুগোল অ্যাডসেন্সে ঢুকেছে এগুলো দেখে আসি কিন্তু আপনি যদি এই প্লাগিন ব্যবহার তাহলে কিন্তু তার সমস্ত ফলাফল আপনি শুধু আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেল থেকে দেখতে পারবেন।

তবে আপনি কিন্তু গুগলের আমাদের প্রয়োজনীয় চারটি সার্ভিস আপনার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে দেখতে পারবেন এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কন্ট্রোল করতে পারবেন এর জন্য আপনাকে এই প্লাগিনটি ওয়েবসাইটে ইনস্টল করে নিতে হবে এবং এটিই প্রথম প্রথমবার সেটআপ করে নিলে কিন্তু কাজ হয়ে যাবে পরবর্তী সময় আপনাকে আর কোন প্রকার কিছু করতে হবে না ধরুন আপনি আপনার এডসেন্স একাউন্ট এর সাথে যদি একবার এটি কানেক্ট করে নিন তাহলে কিন্তু আপনাকে আর কানেক্ট করতে হবে না অর্থাৎ যতদিন আপনার ওয়েবসাইটে এই প্লাগইনটি থাকবে ততদিন আপনি আপনার ওয়েব সাইট এর এডমিন প্যানেল থেকে গুগল এডসেন্স একাউন্ট এর সমস্ত ফিউচার দেখতে পারবেন।

যাদের এই plug-in টি প্রয়োজ এটি কিন্তু একদম ফ্রি প্লাগ-ইন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে গিয়ে এবং প্লাগিন হিস্টোরিতে গিয়ে যদি সার্চ করেন এটি লিখে Google sitekit by Google তাহলে কিন্তু এই প্লাগিনটি পেয়ে যাবেন এবং সেখান থেকে প্লাগিন ইন্সটল করবেন প্রথমবার আপনাকে পুরো প্ল্যাগিন সেটআপ করতে কিছুক্ষণ সময় লাগতে পারে কিছুক্ষণ বলতে মোটামুটি কিছু সময় লাগবে আপনার এই প্লাগিনটি পুরোপুরিভাবে সেটআপ করতে এবং প্রথমবারেই কিন্তু আপনাকে একটি ভালো ভাবে সেটা পড়ে নিতে হবে তাহলে পরবর্তী সময় আর কোন সমস্যা হবে না আপনি যদি একবার এটি সেটআপ করে নেন তাহলে কিন্তু যতদিন আপনার সাইটটি রয়েছ ততদিন আর সেটা পড়ে নিতে হবে না অটোমেটিক ভাবে সবকিছু আপনি আপনার ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেল থেকে দেখতে পারবেন।

contact form 7 প্লাগিন এর কাজ কি কি

আমরা ওয়ার্ডপ্রেসে যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট ব্যবহার করি না কেন অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটে একটি জরুরী পেজ রাখা আবশ্যক সেই পেজটির নাম হচ্ছে কন্টাক পেজ আপনি যেকোন ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করেন না কেন আপনার সাথে যেন খুব সহজভাবে যোগাযোগ করতে পারে এর জন্য আপনাকে একটি পেজ তৈরি করতে হবে আপনার ওয়েবসাইটটিতে যদি আপনি লক্ষ্য করেন তাহলে দেখতে পারবেন আমাদের ওয়েবসাইটের সবার নিচে আমরা এই পেস্টটি ব্যবহার করতেছি এবং এখানে আপনার সাথে মানুষ খুব সহজভাবে যোগাযোগ করতে পারবে খুব সুন্দর ভাবে একটি ফরম দেওয়া হয়েছে সেখানে আপনার সাথে যে মানুষকে যোগাযোগ করতে চাচ্ছে সে বিস্তারিতভাবে যদি কোন কিছু লিখে আপনাকে পাঠায় সেটা কিন্তু সাথে সাথে আপনার ইমেইল বক্সের চলে যাবে।

অর্থাৎ আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটে যে ইমেইলটি দ্বারা তৈরি সেই ইমেইলটি তে আপনাকে সমস্ত বার্তা প্রেরণ করা হবে আপনার সাথে মানুষ খুব দ্রুত যোগাযোগ করতে পারেন যদি আপনি শুধুমাত্র ইমেইল একাউন্ট শেয়ার করেন তাহলে কিন্তু সেই ইমেইলটি কপি করে এবং সেটি জিমেইল অ্যাপস এ গিয়ে তারপর কন্টাক করতে হবে আর যদি আপনি এই প্লাগিনটি ব্যবহার করেন তাহলে কিন্তু সুন্দর একটি ফরম ফি যাবেন আমাদের ওয়েবসাইটের কন্টাক পেজটি আপনি একবার দেখে আসতে পারেন খুব সুন্দর ভাবে একটি ফরম দেওয়া হয়েছে এবং সেখানে যে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে তার নাম ইমেইল এড্রেস ওয়েবসাইট এবং সে কি বিষয় নিয়ে আপনার সাথে যোগাযোগ করতে চাচ্ছে সমস্ত ধরনের ফিউচার এখানে রয়েছে।

আরও পড়ুনঃ
ওয়েবসাইটে কিভাবে এসইও করবেন এবং খুব দ্রুত ওয়েবসাইটের ভিজিটর বৃদ্ধি করার উপায় Google News & instant index কেন সেটআপ করবেন বিস্তারিত

চাইলেই কিন্তু আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আপনি এই প্লাগিনটি ব্যবহার করতে পারেন তাহলে আপনাকে আর আলাদাভাবে কোন ফ্রম পেজ তৈরি করতে হবে না এবং এই প্লাগইনটি কিন্তু একদম ফ্রিতে পেয়ে যাবেন এর জন্য আপনাকে যেতে হবে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে এবং তার পরবর্তী আপনি প্লাগিন হিস্টরি থেকে সার্চ করবেন content form 7 তাহলে আপনি এই প্লাগিনটি পেয়ে যাবেন এবং সেটি আপনার ওয়েব সাইটিতে ভালোভাবে সেটআপ করে নিবেন এবং খুব সহজভাবে কিন্তু আপনি এটি সেটআপ করে নিতে পারবেন প্লাগিনটি ইন্সটল করার পর এডমিন প্যানেলে দেখতে পারবেন নতুন একটি অপশন যোগ হয়েছে নাম হচ্ছে contact যেখান থেকে নতুন করে একটি পেস্ট তৈরি করে নিবেন এবং সেখান থেকে আপনাকে একটি কোড দিবে।

এই কোডটি কপি করে আপনি আপনার সাইটের যে মেইষ পেজ রয়েছে অর্থাৎ কন্টাক্ট পেজ তৈরি করে সেখানে আপনি এই কোডটি টেক্সট বক্সে পেস্ট করে দিবেন এবং তারপর পেজটি পাবলিসিটি করবেন তার পরবর্তী দেখতে পারবেন আপনার পেজটি হুবহু আমাদের ওয়েবসাইটের যে কন্টাক্ট পেজ টি রয়েছে এইরকম হয়ে যাবে আশা করি আপনার কাছে প্লাগিনটি ভালো লাগবে যদি আপনার কন্টাক্ট পেজ তৈরি করার জন্য কোন প্লাগিন প্রয়োজন হয় তাহলে অবশ্যই এটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন এছাড়াও আরও রয়েছে গুগোল কন্টাক্ট পেজ লাগে তবে আমি শুধুমাত্র এটি ব্যবহার করে থাকি অন্য কোন প্লাগিন ব্যবহার করি না এই পেজটির জন্য।

Wp downgrade খুব প্রয়োজনীয় প্লাগিন

এই প্লাগিন কিন্তু একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি প্লাগিন হিসেবে কাজ করে কেননা আমাদের ওয়েবসাইটে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের থিম অথবা প্লাগিন ইন্সটল করতে সমস্যা হয়ে থাকে তার মূল কারণ হচ্ছে ভার্শন সব ভার্সনে কিন্তু আমাদের ওয়েবসাইটে সকল ধরনের থিম এবং প্লাগিন আপলোড করা যায়না ভার্শন সমস্যা থাকার কারণে তবে আপনি এই থেকে খুব সহজভাবে সমস্যার সমাধান করতে পারেন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস প্রথমবার ইন্সটল করার পর কিন্তু আপনি কোন ভাবে আর সেই ওয়ার্ডপ্রেসের ভার্সন চেঞ্জ করতে পারবেন না আবার ইনস্টল ছাড়া তবে আপনি চাইলে কিন্তু শুধুমাত্র একটি প্লাগিন এর মাধ্যমে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ইন্সটল করার পর আপনার ইচ্ছেমত ভার্সন চেঞ্জ করতে পারবেন খুব সহজ ভাবে এবং কোন প্রকার সমস্যা হবে না।

আপনি চাইলে যেকোন ভার্সনের আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট নিয়ে যেতে পারবেন আমরা ওয়ার্ডপ্রেস যখন ইন্সটল করি তখন কিন্তু আমরা অনেক ধরনের ভার্সন খুঁজে পাইনা কিন্তু আপনি এই প্লাগিনটি দ্বারা পুরনো ভার্সন অর্থাৎ অনেকেই হয়তো পুরনো ভার্সন খুঁজে থাকেন ওয়ার্ডপ্রেসে আপনার যদি ভার্সন নাম্বারটি মনে থাকে তাহলে আপনি কিন্তু শুধুমাত্র এই প্লাগিন এর মাধ্যমে সেই আগের ভার্সনে ফিরে যেতে পারবেন আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট নিয়ে৷

এবং আপনি যখনই আপনার ওয়েবসাইটের ভার্সন চেঞ্জ করনা কেন আপনার ওয়েবসাইটে এর জন্য কোন প্রকার প্রভাব পড়বে না অর্থাৎ কোন প্রকার সমস্যা হবে না অনেকেই হয়তো মনে করতে পারেন যখন আমি ভার্সনটি রিইন্সটল ভাবে চেঞ্জ করবো প্লাগিন এর মাধ্যমে তখন আমার ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে যায় আপনার একদম ভুল ধারণা আপনি যে কোন ভার্সনে আপনার ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে যেতে পারবেন এবং সঠিকভাবে নাম্বার দিতে হবে অর্থাৎ ওয়ার্ডপ্রেসের যে ভার্শন নাম্বার গুলো রয়েছে সেগুলো আপনি যদি সঠিকভাবে জেনে থাকেন তাহলে যে কোন ভার্সনে কিন্তু আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট নিয়ে যেতে পারবেন।

তো এর জন্য আপনাকে শুধুমাত্র এই প্লাগিনটি ব্যবহার করতে হবে wp downgrade এটি একদম ফ্রি প্লাগ-ইন আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে গিয়ে প্লাগিন হিস্টোরিতে গিয়ে সার্চ করুন তাহলে পেয়ে যাবেন এই প্লাগইনটি এবং আপনি যেকোন ভার্শন কিন্তু আনতে পাবেন সময় লাগবে আপনার সর্বোচ্চ 1 থেকে 2 মিনিট এর জন্য আপনি প্লাগিন ইন্সটল করার পর আপনার ওয়েব সাইটের এডমিন প্যানেলে সেটিং অপশন রয়েছে সেখানে ক্লিক করলে কিন্তু Downgrade নামের একটি অপশন দেখতে পারবেন এবং সেখান থেকে আপনি ক্লিক করে যে ভার্সনটিতে ফিরে যেতে চাচ্ছেন অর্থাৎ সেটি পুরনো ভার্সন হোক বা নতুন ভার্সন যেকোন ভার্সনের কিন্তু আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট টি রি-ইন্সটল করতে পারবেন।

তো সেটিং থেকে এই অপশনে যাওয়ার পর সেখানে দেখতে পারবেন বর্তমানে ভার্সনটি আপনার ওয়েবসাইটে রয়েছে এবং আপনি যে ভার্সনটি চালাতে চাচ্ছেন সে ভার্সনটি বর্তমান থাকা ভার্সন এর বক্সে লিখে দিবেন তারপর নিচে দেখতে পারবেন আপডেট লেখা রয়েছে সেটি ক্লিক করে দিবেন এরপর আপনার ওয়েব সাইট এর এডমিন প্যানেলের থ্রি ডট মেনুতে ক্লিক করবেন সেখানে নামের একটি অপশন দেখতে পাবেন সেটি যদি আপনি ক্লিক করেন তাহলে দেখতে পারবেন যে আপনাকে আপনি যে ভার্সন সেখানে লিখেছিলেন সেই ভার্সনটিতে রি-ইন্সটল করতে বলতেছে এবং সেই অপশনটিতে ক্লিক করে দিলেই কিন্তু আপনি আপনার পছন্দের ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে যেতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটের কোন প্রকার সমস্যা হবেনা এটি আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি এবং যেকোনো সময় যেকোনো অবস্থায় কিন্তু আপনি এই কাজটি করতে পারবেন আমি নিজেও কয়েকটি ওয়েব সাইটে ট্রাই করে দেখেছি কোন প্রকার সমস্যা হয়নি আশা করি আপনাদেরও কারো হবে না যখন আপনি ভার্সন চেঞ্জ করবেন সেই সময়।

WP Content Copy Protection কাজ কি কি দেখুন

বর্তমান সময়ে কিছু অসৎ লোক রয়েছে যারা অন্যের ওয়েবসাইটে পোস্ট কপি করে নেই এবং আমরা কষ্ট করি যে পোস্টগুলো ওয়েবসাইটে লিখি সেই পোষ্ট গুলো যদি অন্য কেউ তাদের ওয়েবসাইটে নিয়ে নেয় তাহলে তো খারাপ লাগারই কথা তবে এর জন্য কিন্তু আপনি আপনার ওয়েবসাইটের প্রটেকশন ব্যবহার করতে পারেন যার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইট থেকে কেউ একটি লেখা কপি করতে পারবেন না যখনই কবে ঘুরতে যাবে তখনই সে ওয়েবসাইট থেকে ব্লক হয়ে যাবে অর্থাৎ শেয়ার কনটেন্ট গুলো পড়তে পারবেনা এর জন্য আপনাকে ব্যবহার করতে হবে একটি প্লাগিন যার মাধ্যমে আপনার ওয়েবসাইটটিতে কনটেন্ট প্রোটেকশন দেবে এবং আপনার ওয়েব সাইটটি থেকে কেউ কোন প্রকার ওয়ার্ড কপি করতে পারবে না।

শুধু মাত্র কিন্তু আপনি প্লাগিন এর মাধ্যমে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটগুলোতে এইরকম সিস্টেম করতে পারবেন যদি আপনার ওয়েবসাইট হয়ে থাকে তাহলে এর জন্য আপনাকে আলাদা কিছু কোড ব্যবহার করতে হবে আমি দুঃখিত আমার কাছে সেই কোডগুলো নেই তবে ব্লগারদের জন্য অর্থাৎ যারা ব্লগার থেকে ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন তারা কিছুক্ষণ ব্যবহার করতে পারেন যদি আপনি সেই কোডগুলো ব্যবহার করেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইট থেকে কেউ একটি লেখা কপি করতে পারবে না বর্তমানে এই প্রটেকশন আমাদের অবশ্যই নেওয়া দরকার কেননা মানুষ এখন অন্যের ভালো দেখতে পায় না সেই জন্য অন্যের ওয়েবসাইটে পোস্ট নিজের ওয়েবসাইটে কপি করে নিচ্ছে যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটে প্রোটেকশন করতে চান কনটেন্ট তাহলে এই প্লাগিনটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইটের প্লাগইন হিস্টোরিতে গিয়ে আপনি যদি এটি লিখে সার্চ করেন তাহলে পেয়ে যাবেন এই প্লাগইনটি একদম ফ্রিতে এবং সেখান থেকে শুধুমাত্র ইন্সটল করে একটিভ করে নিলে কিন্তু পুরোপুরি ভাবে কাজ শুরু করে দিবে এবং তারপর থেকে আপনার ওয়েবসাইট থেকে একটা লেখাও কেউ কপি করতে পারবে না এটি শুধুমাত্র ইন্সটল করার পর কিন্তু পুরোপুরি ভাবে কাজ শুরু করে দিবে আপনাকে কোন প্রকার সেটিং করতে হবে না এটির জন্য আপনার যদি মনে হয় যে আপনার পোস্টগুলো অন্য কেউ কপি করতেছে এই মাধ্যমটি করার পরেও তাহলে আপনার জন্য আরও একটি উপায় রয়েছে সেটি হচ্ছে।

আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ‌DMCA প্রটেকশন নিতে পারেন যদি আপনার মনে হয় যে আপনার ওয়েবসাইটের পোস্টগুলো অন্য কেউ চুরি করে বা কপি করে নিচ্ছে তাহলে আপনি পেইড DMCA প্রটেকশন সার্ভিসটি নিতে পারেন এতে করে আপনার ওয়েবসাইটের থেকে কেউ যদি কোন পোস্ট তার ওয়েব সাইটে কপি করে নেয় তাহলে সেটি গুগল থেকে রিমুভ করে দেওয়া হবে আপনি যদি তার বিরুদ্ধে কোন কিছু অ্যাকশন নেন অর্থাৎ গুগোল এ রিপোর্ট করেন তাহলে কিন্তু সাথে সাথে আপনার কন্টেন্ট তার সাইট থেকে রিমুভ করে দেওয়া হবে গুগলের মাধ্যমে এবং তার সাইটে গুগল থেকে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার কাছ থেকে এটি খুবই প্রয়োজনীয় মনে হয় তাহলে আপনি পেইড প্রটেকশন নিতে পারেন তাহলে আপনার জন্য খুব ভালো হবে এবং আপনার ওয়েবসাইট একদম নিরাপদ থাকবে আশা করি বুঝতে পেরেছেন আমাদের আজকের পোস্ট এর সবগুলো‌ বিষয় সম্পর্কে।

আর্টিকেল শেষ কথা

আশা করি আপনি পুরোপুরি ভাবে আমাদের আজকের পোস্ট এর সমস্ত বিষয় গুলো খুব ভালোভাবে বুঝেছেন যদি কারো কোন কিছু বুঝতে সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট বক্সে আপনার মতামত জানিয়ে দেবেন আমরা সেটা সমাধান দেওয়ার চেষ্টা করব যাদের ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট রয়েছে তারা অবশ্যই এই বিষয়গুলো দিকে লক্ষ্য রাখবেন কেননা আমি আজকে আপনাদের সাথে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কিন্তু আলোচনা করেছি এ বিষয়গুলো আমি নিজেও মেনে চলি সেজন্য আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম আশা করি আপনারা উপকৃত হবেন তো সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং আমাদের ওয়েবসাইটের সাথে থাকবেন ধন্যবাদ সবাইকে।

About Admin

পড়াশোনার পাশাপাশি ব্লগিং করতে পছন্দ করি। এবং অনলাইনে টেকনোলজি সবসময় শেখার চেষ্টা করতেছি। আমি যতোটুকু জানি চেষ্টা করি আমার ওয়েবসাইটে শেয়ার করার জন্য।

View all posts by Admin →

Leave a Reply

Your email address will not be published.